বৃহস্পতিবার , ২৭ জানুয়ারি ২০২২ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

পাবিপ্রবি ভিসির বিরুদ্ধে নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ

প্রতিবেদক
পাহাড়ের খবর ডেস্ক
জানুয়ারি ২৭, ২০২২ ৩:১২ অপরাহ্ণ

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হারুনুর রশিদ।

আজ বৃহস্পতিবার পাবনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এম রস্তম আলির বিরুদ্ধে নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ এনেছেন গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান। সংবাদ সম্মেলনে নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

ড. হারুনুর রশিদ জানান, গণিত বিভাগে ২ জন শিক্ষক নিয়গের জন্য গত ২৭ জানুয়ারি নিয়োগ পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। নিয়োগ বোর্ডের একজন সদস্য হিসেবে সেদিন নিয়ম অনুযায়ী তিনি সকালে নিয়োগ বোর্ডে প্রবেশ করতে চাইলে তাকে বাধা দেয়া হয়।

এ সময় ভিসির নির্দেশে তাকে কর্মচারীরা লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়য়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম রস্তম আলির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ড. হারুনের স্ত্রী নিয়োগ পরীক্ষায় একজন প্রার্থী। তাই তাকে নিয়োগ পরীক্ষায় উপস্থিত না থাকতে বলা হয়েছিল। রেজিস্টার অফিস থেকে তাকে ফোন করা হয়েছিল এবং আমি নিজেও ড. হারুনকে বলেছিলাম। নিয়োগ পরীক্ষার স্বচ্ছতার স্বার্থেই তাকে নিয়োগ বোর্ডে থাকতে দেওয়া হয়নি।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ড. হারুন বলেন, ‘আমার স্ত্রী নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থী হওয়ায় গত ২৫ জানুয়ারি আমি লিখিতভাবে পরীক্ষায় প্রশ্ন করা ও খাতা মূল্যায়নের কাজ থেকে বিরত থাকার বিষয়টি জানাই। আমার কোনো নিকট আত্মীয় ভাইভা বোর্ডে গেলে প্রয়োজনে আমি সেখানে উপস্থিত থাকবো না বলে জানিয়েছি।’

‘নিয়োগ বোর্ড থেকে বাদ দেওয়ার বিষয়ে আমাকে কোনো চিঠি না দিয়ে মৌখিকভাবে আমাকে জানানো হয়েছে,’ বলেন তিনি।

ভিসির পছন্দের প্রার্থী নিয়োগ করতেই এমন আয়োজন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে সেকশন অফিসার পদে পরীক্ষা দেওয়া আতিকুল ইসলাম নামে এক চাকরি প্রার্থী জানান, গত জুন মাসে সেকশন অফিসার পদে তিনি পরীক্ষা দিয়েছিলেন, লিখিত পরীক্ষায় তিনি টিকেছিলেন। তবে মৌখিক পরীক্ষা থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়।

ভিসির ভাইজিকে চাকরি দিতে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, ‘নিয়ম মেনেই আমার ভাইজিকে চাকরি দেওয়া হয়েছে। চাকরি না পেয়ে এখন তারা এসব অভিযোগ করছে।’

এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন তিনি।

উল্লেখ্য, বর্তমান ভিসির নিয়গের সময়সীমা প্রায় শেষ হয়ে পড়ায় শেষ মুহূর্তে বিভিন্ন পদে তিনি নিজের পছন্দের লোকজনকে নিয়োগ করতে গিয়ে নানা অনিয়ম করছেন বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সুত্র জানিয়েছে।

তবে স্বচ্ছ ও নিয়মতান্ত্রিকভাবেই সকল নিয়োগ সম্পন্ন হচ্ছে বলে দাবি করেন ভিসি।

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত

কাপ্তাইয়ে প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার মতো আর কেউ দেশ পরিচালনায় সততার নজির দেখাতে পারেননি- কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা

বাঘাইছড়িতে ৪০০ পরিবার পেল মানবিক সহায়তা

কাউখালীতে ঈদ- এ- মিলাদুন্নবীর ( দঃ) জশনে জুলুস

বন্যা দুর্গতদের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রান সহায়তা

বাঘাইছড়িতে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে জেলা প্রশাসক

কাপ্তাইয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও শিশু দিবস পালন

খাগড়াছড়িতে শীতবস্ত্র ও শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ

ঘাগড়ার দূর্গম পাহাড়ি গ্রামে বিদ্যুৎ সরবরাহ উদ্বোধন করলেন দীপংকর

পাহাড়ের নারী উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়িক দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করবে ব্রাক ব্যাংক ও এসএমই ফাউন্ডেশন

%d bloggers like this: