রবিবার , ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

ব্যবসায়ী কামাল হোসেনের সংবাদ সম্মেলন খবরের প্রতিবাদ

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি
ডিসেম্বর ২৪, ২০২৩ ৭:২৯ অপরাহ্ণ

কলেজ গেট বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ কামাল হোসেনের সংবাদ পাহাড়ের খবরের প্রকাশ হবার পর এ সংবাদের প্রতিক্রিয়া ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন মোঃ মোখতার আহমেদ, মোঃ ইউছুফ, মোঃ বিল্লাল হোসেন টিটু এবং মোঃ জসীম উদ্দীন। পাহাড়ের খবরে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিক্রিয়া ও প্রতিবাদ জানান তাঁরা।

প্রতিবাদলিপিতে উক্ত ব্যাক্তিরা বলেন, মোঃ  কামাল হোসেন আমাদের বিরুদ্ধে যে সমস্ত অভিযোগ এনে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন তার আলোকে বিস্তারিত আমরা লিখিত আকারে তুলে ধরলাম।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত রাঙ্গামাটি জেলা মডেল মসজিদ স্থাপন করার প্রস্তাব গৃহীত হইলে সকল কার্যক্রম শেষে ০৮/১০/২০২৩ইং তারিখে প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা সহ মাননীয় এমপি মহোদয় উপস্থিত হয়ে মডেল মসজিদের ভিত্তি স্থর উদ্বোধন করেন।

মসজিদ কমিটি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ দোকানদারদের সালামির টাকা ফেরত দেওয়ার লক্ষ্যে একটি জরুরী সভা আয়োজন করা হয়।

উক্ত সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, মসজিদ কমিটির হাতে যে পরিমাণ অর্থ আছে তা দিয়ে সালামির টাকা পরিশোধ করা সম্ভব না। তাই মসজিদ কমিটির পক্ষ হতে যে সমস্ত দোকানগুলো তৈরী করা হয়েছিলো এবং একটি নতুন মসজিদ নিমার্ণের কাজ করা হয়েছিলো। সে সমস্ত সকল মালামাল নিলামে দিয়ে দোকানদারদের পাওনা সালামির টাকা ফেরৎ দেওয়া হবে।

উক্ত স্থানের পুরানো মসজিদ ও গাছ-গাছালি সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন। তাই তা সড়ক ও জনপথ বিভাগের স্টোরে জমা প্রদান করা হয়।

গত ০৫/১১/২০২৩ইং তারিখ সকল দোকানদারদের সাথে মোঃ কামাল হোসেনের সালামির টাকাও ফেরৎ প্রদান করা হয়। তাদেরকে বলা হয় ০১ (মাস) এর দোকান ভাড়া লাগবে না। এক মাস পর আপনার দোকান খালি করে অন্যত্র চলে যাবেন। মডেল মসজিদের কাজ শুরু হবে, যাতে করে কোন প্রকারের সমস্যা তৈরি না হয়।

সকল দোকানদার চলে গেলেও, মোঃ কামাল হোসেন কোন ভাবে দোকান ছাড়তে রাজি না। পরবর্তী সময়ে দোকান ছেড়ে দিবে বলে রাজি হয়ে তার মালামাল ছোট একছালা দোকানটিতে রেখে বলে আমাকে আর কয়েকদিন সময় দেন। আমি অনত্র চলে যাবো।

এরমধ্যে কন্ট্রাক্টর কাজ শুরু করলে, তাকে কয়েক বার দোকান ছাড়ার কথা বললেও দোকান ছাড়েনি। ওল্টা মামলা-হামলার, হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে। সে বিভিন্ন ভাবে ও আমাদেরকে বাহির থেকে ভাড়া করে লোক এনে আমাদেরকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে এবং সরকারি জায়গায়টিতে মডেল মসজিদ না হওয়ার জন্য বিভিন্ন ছল-চাতুরীর করে আসছে। মোঃ কামাল হোসেনের অভিযোগে যাহা বলেছে:-

ক) রাতের অন্ধকারে দোকান ভাংচুর করা হয়েছে। তা একবারেই মিথ্যা।

খ) চাঁদাবাজী ও প্রাণনাশের হুমকির যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা মিথ্যা ও বানোয়াট। যাহা উদ্দেশ্য প্রণোদিত। যাতে করে সমাজে আমাদেরকে হেয় প্রতিপণ্য করা যায়। এটা ছাড়া অন্য কিছু নয়।

সে একজন দুষ্ট ও খারাপ প্রকৃতির মানুষ। কলেজ গেইট এলাকার সকলেই স্বাক্ষী দিবে। তার এহেন কর্মকান্ড ও ২৩/১২/২০২৩ইং তারিখের কর্মকান্ডে আমরা প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানাই।

 

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত

বরকলে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ত্রাণ বিতরণ

ঘরে বসে ভাতা পাচ্ছেন জুরাছড়ির বয়স্ক বিধবা প্রতিবন্ধীরা

বর্ণিল আয়োজনে কাপ্তাইয়ে বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব 

রাবিপ্রবি ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও ওরিয়েন্টেশন ক্লাস অনুষ্ঠিত

পাহাড়ের খবরে সংবাদ প্রকাশের পর উন্নয়ন বোর্ডের টিম ক্ষতিগ্রস্ত সেতু পরির্দশন

বাঘাইছড়িতে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন

কাউখালীতে পাহাড়ের পাশে কয়েকশ পরিবারের ঝুঁকিপূর্ণ বসবাস

৯৯৯ এ ফোন সাজেকে ঝর্ণায় আটকে পড়া অসুস্থ পর্যটককে উদ্ধার করলো পুলিশ 

সন্তান হত্যার অভিযোগে বাবাকে আটক করেছে পুলিশ

জুরাছড়িতে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছে প্রশাসন

%d bloggers like this: