রবিবার , ৩ মার্চ ২০২৪ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

বান্দরবানে অনাথ শিশুদের নিয়ে “সময়ের আলো” ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান।
মার্চ ৩, ২০২৪ ১:১১ অপরাহ্ণ

দৈনিক সময়ের আলোর” ৫ম তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অনাথ শিশুদের নিয়ে আয়োজন করলো বান্দরবানে। র

বিবার (৩ মার্চ) সকালে প্রান্তিকলেক শান্তমিত্র বৌদ্ধ ম্রো অনাথ আশ্রম ও বির্দশন ভাবনা কেন্দ্রের সমাজের পিছিয়ে পড়া অনাথ শিক্ষার্থীদের নিয়ে কেক কেটে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

পরে অনাথ শিক্ষার্থীদের বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি কিকিউ মারমা সময়ের আলো পক্ষ থেকে কিছু শিক্ষা সামগ্রী, মিষ্টি ও খাদ্য তাদের হাতে তুলে দেয়া হয়। অনুষ্ঠানের অনাথ আশ্রমে পরিচালক ও বিহারাধ্যক্ষ শান্তমিত্র মহাথের বলেন, দূর্গম প্রত্যন্ত অঞ্চলের মাতা পিতাহীন সুবিধাবঞ্চিত ৪৫ জন অসহায়দের নিয়ে ২০১৯ সালে শিক্ষা, সংস্কৃতি ও ধর্মীয় জীবনযাপনের লক্ষ্যে গড়ে তোলা এই অনাথআশ্রম। তিনি বলেন, বান্দরবান জেলার অন্তর্গত সুয়ালক ইউনিয়নে ০২ নং ওয়ার্ডে পাহাড়ের বেষ্টিত ও দূর্গম প্রত্যন্ত এলাকা প্রান্তিকলেক ম্রো পাড়া মাত্র ৬ টি ম্রো সম্প্রদায় বৌদ্ধ পরিবার নিয়ে এই বৌদ্ধ বিহার ও অনাথআশ্রম। আমার ভিক্ষুত্ব জীবনের যা দান-দক্ষিনা পেয়ে থাকি তা হতে সম্পূর্ণ এই অনাথআশ্রম ও বৌদ্ধ বিহারের জন্য ব্যয় করে থাকি।

এই অনাথআশ্রমের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী সর্বমোট ৪৫ জন সুবিধাবঞ্চিত, অসহায়, অনাথ শিশুর আশ্রয় হয়েছে। অত্যন্ত দুর্গম নাইক্ষ্যংছড়ি, আলীকদম, লামা, বিলাইছড়ি, রাঙ্গামাটি, রুমা, রোয়াংছড়ি, উপজেলায় দূর্গম পাড়া থেকে অসহায়, মাতাপিতা হীন ছেলেদের এখানে শিক্ষা অর্জন ও ভরনপোষন করা হয়। তাদের খাওয়াদাওয়া, লেখাপড়া, কাপড়চোপড়, চিকিৎসা সহ সম্পূর্ণ খরচ আমার নিজের দান-দক্ষিনা দিয়েই চলমান রয়েছে।

এই অনাথশিশুরা আগামীতে প্রাথমিক শিক্ষায় ও ধর্মীয় শিক্ষায় আলোকিত হউক, এবং জাতি, সমাজ ও মানবের তরে কল্যাণমূলক কাজ করুক এটাই কাম্য। বর্তমানে এখানে মারমা, ম্রো, খেয়াং ও বড়ুয়া সম্প্রদায়ের ছেলেরা অবস্থান করছে। অনাথ শিশুদের কষ্টে কথা তুলে ধরতে গিয়ে তিনি বলেন, এই ৪৫ জন ছেলেদের থাকার জন্য তেমন কোন এখনও উন্নত স্থান করে দিতে পারি নি, বিহারের উপাসনার স্থানেই রাতে ঘুমানোর বিছানা তাদেরকে শুইতে হয়। ভবিষ্যৎ তাদের থাকার জন্য ৫ কক্ষ বিশিষ্ট একটা হল রুম করা হলে, তাহলে ছেলেরা সুনিশ্চিত ভাবে অবস্থান করতে পারবে। আগামী প্রজন্মকে রক্ষায় সমাজের বিত্তবানগণদের এগিয়ে আসা আহ্বান রইল। প্রত্রিকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সর্বদা সত্যের সন্ধানে বেগবান, বহুপ্রচারিত, বহুপাঠকের প্রিয় প্রত্রিকা “দৈনিক সময়ের আলো ” প্রত্রিকার ৫তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী ও ৬ষ্ট বর্ষের পর্দাপন উপলক্ষে প্রান্তিকলেক শান্তমিত্র বৌদ্ধ ম্রো অনাথআশ্রমের ও অনাথশিশুদের জন্য খাদ্য সামগ্রী দান, শিক্ষা সামগ্রী দান ও কেক দান করা হয়।

এই মহেন্দ্রক্ষনে অনাথশিশুদের পক্ষ থেকে দৈনিক সময়ের আলো প্রত্রিকার যারা জড়িত সকল সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানাই। এসময় স্থানীয় কয়েকজন সংবাদ কর্মী ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও অনাথ আশ্রমে শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

%d bloggers like this: