মঙ্গলবার , ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

রাঙামাটির বসন্ত পাংখোয়া পাড়ায় এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি।
ডিসেম্বর ২৬, ২০২৩ ৬:১১ অপরাহ্ণ

রাঙামাটি সদর উপজেলার বালুখালী ইউনিয়নের বসন্ত পাংখোয়া পাড়ায় এক  স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

গত ২৪ ডিসেম্বর দিবাগত রাত আড়াই টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।  ভিক্টিম স্কুল ছাত্রী তার এক বান্ধুবী ও চার ছেলে বন্ধু সহ পাংখোয়া পাড়ায় ২৫ ডিসেম্বর বড় দিন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিল।

ভিক্টিম ছাত্রী বলেন, তারা সর্বমোট ৬ জন বন্ধু নিয়ে জুরাছড়ি উপজেলা থেকে ২৫ তারিখ বালুখালীর পাংখোয়া পাড়ায় বড়দিন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন।

পরিকল্পনা ছিল ২৪ ডিসেম্বর রাতে তারা মাঝ পথে সবাই মিলে এক জুম ঘরে রাত কাটাবেন। সে অনুযায়িী তারা একটি জুম ঘরে উঠেন।

রাত দেড় থেকে দুই টার দিকে তিনজন লোক আমাদের জুম ঘরে আসে। এসে তারা নিজেদের আঞ্চলিক দলের প্রভাব দেখায়। তারা আমাদের বলে এখানে ছেলে মেয়ে একসাথে থাকা যাবে না। আমাদের পাংখোয়া পাড়ায় নিরাপদে পৌছে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। কিছু দুরে নিয়ে পাশের একটি জুম ঘরে নিয়ে রাসেল চাকমা ধর্ষণ করে।

ভিক্টিম ছাত্রী বলেন, আমকে রাসেল চাকমা নিয়ে যায়। আমার আরেক বন্ধবীকে রুবেল চাকমা ও জিকো চাকমা নিয়ে যায়। রাসেল আমাকে ধর্ষণ করে। আরেক ছাত্রী বলেন, তাকে ধর্ষণ করা হয়নি। পরদিন সকালে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়।

ধর্ষণের শিকার ভিক্টিম ছাত্রী ও তার বান্ধবী বলেন, তিনজনে গলা ও মাথায় মোড়ানো ঘামছা এবং মুখে মাস্ক ছিল। পরদিন বিষয়টি জানাজানি হলে এদের ছবি আমাকে দেখানো হলে আমি ধর্ষকদের চিনতে পারি। ভিক্টিম ছাত্রী বলেন, এ ঘটনার পর তাদের আর বড় দিনে যোগ দেয়া হয়নি।

বালুখালী ইউপি চেয়ারম্যান অমর কুমার চাকমা বলেন বিষয়টি শুনেছি। স্থানীয় মেম্বারকে বিষয়টি দেখতে বলছি।

জুরাছড়ি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা বলেন ঘটনা সত্য। রাসেল চাকমা ও রুবেল চাকমার বিষয়টি আমরা নিশ্চিত হয়েছি। অভিযুক্ত রুবেল চাকমা জুরাছড়ি বনযোগী ছড়া ইউনিয়নের ৫ নং  এবং রাসেল চাকমা ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তারা দুজনই বিবাহিত এবং পেশায় ভাড়াতে মোটর সাইকেল চালক।

তারা এখন পলাতক। তাদের ধরতে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীকে বলা হয়েছে। কোন আঞ্চলিক দল যেন তাদের আশ্রয় না দেয় সে বিষয়টি আমরা অনুরোধ করছি।

রাঙামাটি পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ বলেন, বিষয়টি পুলিশ গুরুত্বসহকারে নিয়েছে। ভিক্টিদের রাঙামাটি আনা হচ্ছে।  মামলা হবে।  অপরাধীদের ধরতে পুলিশসহ নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান পরিচালনা করছে।

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত

বাঘাইছড়ি উপজেলায় আস্থা প্রকল্পের ইয়ুথ গ্রুপের সভা অনুষ্ঠিত

পার্বত্য ভুমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনের সভা বাতিলসহ ৭ দফা দাবীতে ৩২ ঘন্টার হরতাল চলছে রাঙামাটিতে

হাতি সংরক্ষণে উদ্যোগ নিতে হবে-ডিসি মিজানুর রহমান

সাজেকে পর্যটকবাহী জীপ দুর্ঘটনা, গুরুতর আহত ১

জুরাছড়িতে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন

ইউনিয় পর্যায়ে দক্ষতা বৃদ্ধি গুনগতমান উন্নয়নে অগ্রগতি ও অর্জন অবহিতকরণার্থে জেলা পর্যায়ে কর্মশালা 

কাপ্তাই জোনের উদ্যোগে বাঙ্গালহালিয়াতে ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান

থানচিতে নিখোঁজ চার শ্রমিকের সন্ধান পাওয়া গেছে

কাপ্তাইয়ে পরোয়ানা ভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

জুরাছড়িতে লাগামহীন ভাড়া বৃদ্ধি 

%d bloggers like this: