শনিবার , ২ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

বাঘাইহাটে পার্বত্য চুক্তির ২৬বছর পূর্তিতে নানান কর্মসূচি

প্রতিবেদক
দীঘিনালা প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি।
ডিসেম্বর ২, ২০২৩ ৫:০৩ অপরাহ্ণ

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের বাঘাইহাট জোন ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে পাহাড়ি বাঙালি ভেদাভেদ ভূলে জাঁকজমক ভাবে একত্রিত হয়ে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রেখে শান্তি চুক্তি সাক্ষর দিবসটি উদযাপিত হয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ২৬ তম পার্বত্য শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর দিবস উপলক্ষে বাঘাইহাট ৬ই বেংগলের আয়োজনে বাঘাইহাট সেনাবাহিনীর খেলার মাঠ থেকে এক বর্নাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেয় বাঘাইহাট ৬ইং বেংগলের জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মোঃ তৌহিদুর রহমান।

স্থানীয় সকল পাহাড়ি- বাঙ্গালীসহ সকল সম্প্রদায়ের লোকজনের অংশ গ্রহনের র‌্যালিটি বাঘাইহাট বাজার ৩৬নং সাজেক ইউনিয়ন পরিষদ এলাকা ঘুরে শেষে হয়। পরে জোন সদরের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ, শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণের ও হেডম্যান ও কার্বারীদের নিয়ে আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শেষে হয়।

র‌্যালি শেষে জোন কমান্ডার মহোদয় সকলের উদ্দেশ্য বলেনঃ পার্বত্য অঞ্চলে যারা শান্তি বিনষ্ট করছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ভাবে দমন করতে হবে। কারন আমাদের দেশে কোন সন্ত্রাসীর ঠাই নাই। এতে হতদরিদ্র ও দুস্থ পাহাড়ী বাঙ্গালী ২শতাধিক জন রোগীদের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ করেন বাঘাইহাট জোনের আরএমও ক্যাপ্টেন মুহাইমেন উর রশীদ এএমসি।

বাঘাইহাট জোন সদর প্রশিক্ষন মাঠে পাহাড়ি-বাঙ্গালী শতাধিক পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। জোন সদরের হেডম্যান ও কার্বারী সম্মেলনে বক্তরা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ১৯৯৭ সালে ২ ডিসেম্বর শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের পর থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী শান্তি সম্প্রীতি, রাস্তা, স্কুল, কলেজ, পর্যটন নগরীসহ উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর দিক নির্দেশনায় বাঘাইহাট সেনা জোনের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় শান্তি ও সম্প্রীতি উন্নয়ন ঘটছে।

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত
%d bloggers like this: