শুক্রবার , ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

জুরাছড়িতে ৭১ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নেই

প্রতিবেদক
পাহাড়ের খবর ডেস্ক।
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২২ ১২:১৩ অপরাহ্ণ

 

সুমন্ত চাকমা, জুরাছড়ি থেকে

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় ৬৫টি প্রাথমিক ও ছয়টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। ২১ ফেব্রুয়ারি এলে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শিক্ষার্থীদের যেতে হয় উপজেলা প্রশাসন নির্মিত শহীদ মিনারে। নিজ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার না থাকায় দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিবসে শহীদ মিনারে ফুল দিতে গিয়ে পড়তে হয় বিপাকে।

শিক্ষা কর্মকর্তা কৌশিক চাকমা অধিকাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে শহীদ মিনার না তাকার কথা স্বীকার করে বলেন, স্লীপ কর্মসূচির আওতায় প্রতিটি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার স্থাপনের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া বিজয় দিবস, শহীদ দিবস যথাযোগ্য ভাবে পালনে নির্দেশনাও দেওয়া রয়েছে।

উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় ৬১টি সরকারি ও চারটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোনোটিতেই শহীদ মিনার নেই। এছাড়া আটটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ভুবন জয় সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ও বনযোগীছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার রয়েছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলা প্রশাসন নির্মিত শহীদ মিনারটি সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলা প্রশাসন নির্মিত শহীদ মিনারটি শিশুপার্কে পূর্বে নির্মাণ করা হয়েছে। শহীদ মিনার অধিক সময় তাকে তালাবদ্ধ। প্রবিণ শিক্ষক ও শিক্ষানরাগি ধল কুমার চাকমা জানান, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার থাকা প্রয়োজন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রধান শিক্ষক বলেন, একুশ এলেই আমরা শুধু মাতৃভাষার মর্যাদার কথা ও শহীদ দিবসের কথা বলি। এরপর ভাষা শহীদদের কথা কারো আর মনে থাকে না। তিনি আরো বলেন, বছর বছর উপজেলায় উন্নয়নের জন্য কত না বরাদ্দ আসছে! অথচ প্রতিটি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণের তাগিদ কেউ অনুভব করছে না।

উপজেলা চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এ বিদ্যালয়ের ভবন নব নির্মানের সাথে শহীদ মিনার নির্মানের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিতেন্দ্র কুমার নাথ বলেন, সকল ছাত্র-ছাত্রী যেন নিজ বিদ্যালয়ে শহীদদের স্মরণ ও শ্রদ্ধা জানাতে পারে সে লক্ষে আমরা বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি। এ বিষয়ে আগামী উন্নয়ন সমন্বয় সভায় গুরুত্ব সহকারে আলোচনা করা হবে।

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত

বিজু উপলক্ষ্যে চাকমা ভাষার চলচ্চিত্র ‘নুও স্ববন’

৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্স চান পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা

হলফনামায় তথ্য গোপন করায় রামগড়ে চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রাঙামাটি শহরের হাসপাতাল এলাকায় তিনতলা ভবন দখলকে কেন্দ্র করে আটক ২ 

ফের কাপ্তাই লেকে অভিযান, ২ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ৭টি রিং জাল জব্দ 

রাঙামাটিতে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের মিছিল সমাবেশ

নারীর ক্ষমতায়নে জন্য প্রধানমন্ত্রী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন-দীপংকর তালুকদার এমপি

জুরাছড়ি ফকিরাছড়ি শাখা বন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত

লংগদুতে প্রশিক্ষণ শেষ করা শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্পিউটার সনদ বিতরণ

কাপ্তাইয়ে ইক্ষু ও সাথী ফসল চাষ শীর্ষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

%d bloggers like this: