রবিবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. জাতীয়
  2. রাঙামাটি
  3. খাগড়াছড়ি
  4. বান্দরবান
  5. পর্যটন
  6. এক্সক্লুসিভ
  7. রাজনীতি
  8. অর্থনীতি
  9. এনজিও
  10. উন্নয়ন খবর
  11. আইন ও অপরাধ
  12. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী
  13. চাকরির খবর-দরপত্র বিজ্ঞপ্তি
  14. অন্যান্য
  15. কৃষি ও প্রকৃতি
  16. প্রযুক্তি বিশ্ব
  17. ক্রীড়া ও সংস্কৃতি
  18. শিক্ষাঙ্গন
  19. লাইফ স্টাইল
  20. সাহিত্য
  21. খোলা জানালা

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে কাজ করবে রাঙামাটি জেলা পরিষদ

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি।
ডিসেম্বর ১৭, ২০২৩ ২:৩২ অপরাহ্ণ

রাঙামাটিতে জলবায়ু ও পরিবেশ নিয়ে কাজ শুরু করতে যাচ্ছে রাঙামাটি জেলা পরিষদ। লোকাল গভরমেন্ট ইনিসিএটিভ অন ক্লাইমেট চেইঞ্জ (লোজিক) প্রকল্পের আওতায় জেলার বিলাইছড়ি, জুরাছড়ি, বরকল এবং রাঙামাটি সদর উপজেলায় মোট ৮টি ইউনিয়নে পরীক্ষামুলক এ প্রকল্প শুরু হবে। এটি শেষ হবে ২০২৫ সালে জুন মাসে।
রবিবার সকালে রাঙামাটি জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে প্রকল্প সম্পর্কে অবহিতকরণ সভায় এ তথ্য জানানো হয়।
প্রকল্পের সুবিধাভোগী ইউনিয়নগুলো হল রাঙামাটি সদর উপজেলার বালুখালী, সাফছড়ি, বিলাইছড়ি উপজেলার কেংরাছড়ি, ফারুয়া, বরকল উপজেলার ভুষণছড়া, সুবলং, লংগদুর ভুষণছড়া এবং ভাসন্যাদাম ইউনিয়ন। এ ৮ ইউনিয়নে ৩৫০০পরিবার সরাসরি প্রকল্পের সুবিধা পাবে। এসব পরিবার মৎস্য, কৃষি এবং প্রাণী সম্পদ নিয়ে দলগতভাবে কাজ করবে।
প্রকল্প অবহিতকরণ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী।
এসময় তিনি বলেন, পার্বত্য চুক্তির কারণে পার্বত্য চট্টগ্রামে অনেক প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। এসব প্রকল্পগুলোর মধ্যে কিছু প্রকল্প সফলতা পেয়েছে। কিছু প্রকল্পে সফলতা আসেনি। এসব অভিজ্ঞতার আলোকে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে। এ প্রকল্প যেন সফলতা আসে সেজন্য সবাইকে গুরুত্বসহকারে নজরদারী করতে হবে। এ প্রকল্প সফলতা পেলে আরো নতুন প্রকল্প গ্রহণ করার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।
বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে জলবায়ু পরিবর্তনে বিরুপ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এখানে বন উজাড়ের কারণে পানি সংকট তীব্রতর হচ্ছে। এখনই ব্যবস্থা না নিলে পার্বত্য চট্টগ্রাম বসবাস অযোগ্য হয়ে যাবে।
জেলা পরিষদের সদস্য রেম লিয়ানা পাংখোয়ার সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা নুরউদ্দিন মো. শিবলী নোমান, লোজিক প্রকল্পের ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অফসিার মো. শরিফুল ইসলাম, অপারেশন ম্যানেজার মো. এনামুল হক, জেলা কর্মকর্তা পলাশ খীসা। অবহিতকরণ সভা শুরুর আগে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন লোজিক প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়ক একেএম আজাদ রহমান।
বক্তব্য রাখেন জেরা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. শাহজাহান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান, মানবাধিকার কর্মী নিরূপা দেওয়ান, টুকু তালুকদার, রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল, রাঙামাটিপ রিপোর্টার্স ইউনিটির যুগ্ম সম্পাদক হিমেল চাকমা, জুরাছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সুরেশ কান্তি চাকমা, বালুখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অমুর কুমার চাকমা, সাপছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রবীন চাকমা, হেডম্যান নেতা থোয়াই অং মারমা, আশিকা নির্বাহী পরিচালক বিপ্লব চাকমা, সিআইপিডির নির্বাহী পরিচালক জনলাল চাকমা, রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম।

 

সর্বশেষ - আইন ও অপরাধ

%d bloggers like this: